ফৈলজানা ক্রেডিট ইউনিয়নে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত
ছবি: সংগৃহীত

কামনা কস্তা

করোনা নামের অদৃশ্য এক ভাইরাসের থাবায় থামকে গেছে গোটা বিশ্ব। দফায় দফায় ছুটি ও লকডাউনের কারণে থেমে গেছে খেটে খাওয়া মানুষের আয় রোজগার।

করোনার প্রভাবে সমিতির বর্তমান অবস্থা ও ভবিষ্যৎ পরিস্থিতি মোকাবেলায় করণীয় নিয়ে শনিবার ( ১ আগস্ট) ফৈলজানা খ্রিষ্টান কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউিনয়নে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

ফৈলজানা ধর্মপল্লীর আর্চবিশপ টি এ গাঙ্গুলী মিলনায়তনে সমিতির পরিচালনা পর্ষদ এবং প্রতিনিধি সদস্যবৃন্দের অংশগ্রহণে এ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সমিতির চেয়ারম্যান গগন রোজারিও’র স্বাগত বক্তব্যের মধ্য দিয়ে সভা শুরু হয়। স্বাগত বক্তব্যে তিনি বলেন, বর্তমান বিশ্বে করোনা পরিস্থিতির ভয়াবহতায় মানুষ আর্থিকভাবে সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে। করোনার থাবায় ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে উপার্জনহীন সদস্যরা। যার প্রভাব পড়ছে সমিতিতে। বিগত কয়েক মাসে সমিতির আর্থিক লেনদেন (কিস্তি আদায়) সঠিকভাবে হয়নি।

বর্তমান পরিস্থিতির ভয়াবহতার কথা উল্লেখ করে সমিতির চেয়ারম্যান বলেন, এভাবে চলতে থাকলে আমরা শিগগিরই হুমকির মুখে পড়বো। তাই এ সভায় সমিতির বর্তমান পরিস্থিতি মোকাবেলায় কি করা যায়, কি করলে সবার জন্য মঙ্গল হবে, ভাল হবে, সমিতি ক্ষতি পুষিয়ে শিগগিরই আবার আগের মতো স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসতে পারে সে বিষয়গুলো নিয়ে সবাই আলোচনা করার চেষ্টা করবো। এখানে উপস্থিত সবাইকে আলোচনায় সক্রিয়ভাবে অংশগ্রহণ করার জন্য আহ্বান জানাই। সবার সক্রিয় অংশগ্রহণ কামনা করছি।

সমিতির উপদেষ্টা পরিষদের সভাপতি এবং ধর্মপল্লীর পাল-পুরোহিত ফাদার অ্যাপলো রোজারিও, সিএসসি বলেন, সমিতির বর্তমান অবস্থা বিবেচনা করে আমাদেরকে ভবিষ্যতের কথাও চিন্তা করতে হবে। এ পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতে বেশ কিছু সময় লাগবে। সবারই সমস্যা আছে। এটাকে মন থেকে গ্রহণ করে এই পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে হবে। সেই সাথে কিছু কিছু করে লোন ফেরত দেয়ার চেষ্টা করতে হবে।

বর্তমান পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠতে ফাদার অ্যাপলো রোজারিও গঠনমূলক পরামর্শও দেন। তিনি বলেন, সমিতিতে যদি ঋণ আদায় নিয়মিত না হয়, তবে সমিতি আর্থিক সংকটে পড়বে। তাই সমিতির ভবিষ্যৎ পরিস্থিতি মোকাবেলায় এখনই কিছু পূর্ব পরিকল্পনা প্রণয়ন করা সময়ের দাবি। তা না করা হলে আগামীতে সমিতি চালানো অনেক কঠিক হয়ে যাবে। এ বিষয়ে সকল সদস্যদের আন্তরিক সহযোগিতার করতে হবে।

আলোচনা সভায় অংশগ্রহণকারী সদস্যবৃন্দ সমিতির কল্যাণে মতামত ও পরামর্শ দেন। আলোচনায় কতিপয় সিদ্ধান্ত গ্রহণের মধ্য দিয়ে আলোচনা সভা সমাপ্ত করা হয়।

image_printপোস্টটি প্রিন্ট করতে ক্লিক করুন...