ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি: ১৬ হাজার টিকেটের ১৫ লাখ সাবস্ক্রাইবার

টেকভয়েস২৪ রিপোর্ট:: পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে আজ (২৪ মার্চ) থেকে ট্রেনের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে, চলবে ৩০ মার্চ পর্যন্ত। এবারও অনলাইন প্ল্যাটফর্ম থেকেই শতভাগ টিকিট বিক্রি করা হবে। রবিবার অনলাইনে পাওয়া যাচ্ছে ৩ এপ্রিলের টিকিট।

সকাল ৮টায় ঢাকায় উন্মুক্ত করা হয় পশ্চিমাঞ্চলের টিকিট। বিক্রি শুরুর আড়াই ঘণ্টার মধ্যেই পশ্চিমাঞ্চল রেলের ১১ হাজার টিকিট বিক্রি শেষ হয়েছে। এ ১১ হাজার টিকিট নেওয়ার জন্য সকাল সাড়ে ৮টায় প্রায় ১৫ লাখ সাবস্ক্রাইবার রেলের ওয়েবসাইট ভিজিট করেছে।

রবিবার (২৪ মার্চ) বেলা পৌনে ১১টায় কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশন ম্যানেজার মোহাম্মদ মাসুদ সারওয়ার সাংবাদিকদের এই তথ্য জানান।

মাসুদ সারওয়ার বলেন, এ বছর ঢাকা থেকে ছেড়ে যাওয়া আন্তঃনগর ৪২ জোড়া ট্রেনের টিকিট দুই পর্যায়ে দেওয়া হচ্ছে। ঈদ উপলক্ষে এ অগ্রিম টিকিট সম্পূর্ণ অনলাইনে বিক্রি হবে। সকাল ৮টায় ঢাকা থেকে পশ্চিমাঞ্চলের টিকিটগুলো ওপেন হয়েছে। আজ ৩ এপ্রিলের টিকিট দেওয়া হয়েছে। দুপুর ২টায় পূর্বাঞ্চলের টিকিটগুলো ওপেন হবে। পশ্চিমাঞ্চলের ট্রেনগুলোতে প্রায় ১৬ হাজার আসন সংখ্যা ছিল। সর্বশেষ সকাল সাড়ে ১০টায় আমরা যে তথ্য পেয়েছি তাতে ১১ হাজার টিকিট বিক্রি হয়েছে।

এবার মোবাইলে ওটিপি ভেরিফিকেশনের মাধ্যমে টিকিট দেওয়া হচ্ছে। স্বস্তির ঈদযাত্রা নিশ্চিতের জন্য সব ব্যবস্থা রাখা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

বাংলাদেশ রেলওয়ে জানিয়েছে, আগামী ৩ এপ্রিলের ভ্রমণের টিকিট পাওয়া যাবে ২৪ মার্চ, ৪ এপ্রিলের ভ্রমণের টিকিট পাওয়া যাবে ২৫ মার্চ, ৫ এপ্রিলের ভ্রমণের টিকিট পাওয়া যাবে ২৬ মার্চ, ৬ এপ্রিলের ভ্রমণের টিকিট পাওয়া যাবে ২৭ মার্চ, ৭ এপ্রিলের ভ্রমণের টিকিট পাওয়া যাবে ২৮ মার্চ, ৮ এপ্রিলের ভ্রমণের টিকিট পাওয়া যাবে ২৯ মার্চ ও ৯ এপ্রিলের ভ্রমণের টিকিট পাওয়া যাবে ৩০ মার্চ।

এর আগে টিকিট কালোবাজারি প্রসঙ্গে রেলমন্ত্রী জিল্লুল হাকিম বলেন, টিকিট বিক্রি শুরুর পর ১০ থেকে ১৫ মিনিটের মধ্যেই শেষ হয়ে যায়। সার্ভার ডাউনের কারণে সাইটে প্রবেশ করা যায় না। এগুলো সব সত্যি। এ টিকিট কালোবাজারির সঙ্গে একটি সিন্ডিকেট জড়িত। যাদের সঙ্গে সহজের লোক ও আমাদের রেলের লোকও জড়িত। ইতোমধ্যে আমরা দুটি সিন্ডিকেটকে ধরে আইনের আওতায় এনেছি। ঠিকমতো টিকেটিং ব্যবস্থা চালু রাখার জন্য সহজকে কঠোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, এছাড়া টিকিট কালোবাজারি বন্ধে আধুনিক প্রযুক্তির ব্যবহার এবং আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী ও রেলের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে কোনোরকম ছাড় দেওয়া হবে না।

অনলাইনে ট্রেনের টিকিট কাটার পদ্ধতি-

বর্তমানে সবচেয়ে সহজ এবং নিরাপদ টিকিট ক্রয় করার পদ্ধতি বলা যায় অনলাইন পদ্ধতিকে। অনলাইন পদ্ধতিতে আপনি খুব সহজেই ট্রেনের টিকিট ক্রয় করতে পারবেন। আপনি আপনার ঘরে বসেই খুব সহজে মোবাইলের মাধ্যমে বাংলাদেশ রেলওয়ে অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে প্রবেশ করে সেখান থেকে খুব সহজেই ট্রেনের টিকিট কাটতে পারবেন।

এছাড়াও রেল সেবা অ্যাপ মোবাইলের প্লে-স্টোর থেকে ডাউনলোড করে সেখান থেকে রেজিস্ট্রেশন করে অনলাইনের মাধ্যমে ট্রেনের টিকিট কাটতে পারবেন। সেখানে আপনি খুব সহজেই বিকাশ নগদ অথবা ব্যাংকের মাধ্যমে টিকিটের টাকা পরিশোধ করতে পারবেন। অনলাইনে টিকিট কাটার পদ্ধতি খুবই সহজ নিরাপদ এবং সহজলভ্য।

অনলাইনে টিকিট কাটার জন্য আপনার একটি স্মার্ট ফোন অথবা একটি কম্পিউটার বা ল্যাপটপ প্রয়োজন হবে সেখান থেকে খুব সহজেই ইন্টারনেট ব্যবহার করে টিকিট কাটতে পারবেন। ডিভাইসটি নেওয়ার পর কোন একটি ব্রাউজারে ঢুকবেন তারপর রেলওয়ের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে ঢুকবেন। আপনি চাইলে প্লে-স্টোর থেকে রেল সেবা অ্যাপ ডাউনলোড করতে পারেন। ওয়েবসাইট অথবা অ্যাপের মধ্যে ঢুকে রেজিস্ট্রেশন করে নিন।

বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষের ওয়েবসাইট অথবা অ্যাপসে আপনাদের এন আই ডি ইমেইল নম্বর ফোন নম্বর ইত্যাদি দিয়ে রেজিস্ট্রেশন করে একটি একাউন্ট তৈরি করতে হবে। “Purchase Ticket” এই অপশনটিতে ক্লিক করার পর আপনাকে চারটি বিষয় ফোন করতে হবে বিষয়গুলো আপনার যাত্রা শুরু জায়গার নাম, আপনি কোন তারিখে যাত্রা করতে চান, এবং আপনি কোন ধরনের সিট নিবেন এবং কতটি সেট নিবেন এই তথ্যগুলো পূরণ করুন।

পরবর্তীতে আপনি দেখতে পাবেন বিভিন্ন রকমের ট্রেন কোন তারিখে কখন আপনার ওই স্টেশন থেকে ছাড়বে সেগুলোর একটি লিস্ট দেওয়া থাকবে আপনি আপনার পছন্দ অনুযায়ী ট্রেন সিলেক্ট করুন এবং সিট নির্বাচন করুন আপনি কোন ধরনের সিট নিতে চান।

ট্রেনের টিকিটের মূল্য পরিশোধ করার জন্য আপনাকে বিকাশ, রকেট ডাচ বাংলা এজেন্ট ব্যাংক এবং ভিসা কার্ড ব্যবহার করতে পারেন। আপনার ট্রেনের টিকিট কাটা হয়ে গেলে ট্রেনের টিকিট কাটা হয়ে গেলে অবশ্যই টিকিটটি ডাউনলোড করে রাখবেন। এবং যাত্রা শুরুর সময় টিকিটের একটি কপি আপনার কাছে রাখবেন।

image_printপোস্টটি প্রিন্ট করতে ক্লিক করুন...