হাতির ভয়ে গাছে বসবাস- টেকভয়েস২৪.কম

টেকভয়েস ডেস্ক

হাতির ভয়ে গাছের ওপর ঘর গড়ে তাতে ১৩ বছর ধরে বসবাস। হ্যা, এরকমই হয়েছে ভারতের আসাম রাজ্যের বাক্সা জেলার মুসলপুরের বাসিন্দা বিজয় ব্রহ্মের জীবনে। এক যুগেরও বেশি সময় ধরে গাছের ওপরে বাস করা বিজয়কে গ্রামের মানুষ এখন ‘বনমানুষ’ বলেই ডাকে। মানুষের সংস্পর্শে আসতে পছন্দ করেন না তেমন। ছোটবেলায় অনাথ হওয়ার পরে অন্যের বাড়িতে কাজ করতেন তিনি। চৌকি বনাঞ্চলের কাছে তার বাড়ি ছিল। একলা মানুষ, তাই ছোট্ট ঘরই ছিল তার সম্বল। কিন্তু ভুটানের জঙ্গল থেকে আসা হাতির পাল প্রায়ই গ্রাম তছনছ করে ফেলত। হাতির ভয়ে বারবার পালিয়ে গাছে উঠতে হতো। ব্রহ্মার বাড়ি বনাঞ্চলের কাছে হওয়ায় সেটাও প্রায়ই ভেঙে দিতো হাতিরা।

বিজয় বলেন, বারবার এই ঘটনার পরে ভাবলাম রাত নামলে যখন হাতির ভয়ে গাছেই উঠতে হয়, তখন খামখা মাটিতে ঘর বানিয়ে কী লাভ? তাই কাঠ, তক্তা জোগাড় করে বনে গাছের ওপরেই ছোট্ট ঘর তৈরি করে ফেলি।

এরপর অন্যের বাড়ির কাজও ছেড়ে দেন তিনি। জঙ্গলে যা পাওয়া যায় তাই খেয়ে থাকেন তিনি। বছয় ছয়েক চৌকি বনাঞ্চলের ভিতরে থাকার পরে পাগলাদিয়া নদীর পারে খৈরানি পথারের কাছে নতুন একটি গাছে বাসা বেঁধেছেন বিজয়। সেখানেও প্রায় সাত বছর হতে চলল। বলেন- বনের আলু, কচু, শাক, নদীর মাছ, শামুক, কাঁকড়া- যা পান তা খেয়েই দিব্যি দিন কেটে যাচ্ছে তার। পিটিআই

image_printপোস্টটি প্রিন্ট করতে ক্লিক করুন...