সর্বাধুনিক উদ্ভাবন গ্যালাক্সি এ৫২ ও এ৭২
ছবি: সংগৃহীত

টেকভয়েস২৪ ডেস্ক :: উন্নত ও অত্যাধুনিক প্রযুক্তির শক্তিশালী উদ্ভাবন সবার কাছে পৌঁছে দিতে গ্যালাক্সি সিরিজের নতুন একটা ফ্লাগশিপ ফোন বাজারে নিয়ে এলো স্যামসাং ইলেকট্রনিক্স কোম্পানি লিমিটেড। মডেল গ্যালাক্সি এ৫২ ও এ৭২।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ সিরিজের সর্বশেষ এই সংযোজনের অসাধারণ ক্যামেরা ফিচার ব্যবহারকারীদের নিজেকে প্রকাশ করতে যেমন সাহায্য করবে, মসৃণ স্ক্রলিংয়ের সাথে স্বচ্ছ ভিউইয়িং অভিজ্ঞতা করবে মুগ্ধ। পানিরোধক বৈশিষ্ট্য এবং দীর্ঘস্থায়ী ব্যাটারিসহ গ্যালাক্সির অভিনব ফিচার থাকায় ব্যবহারকারীরা স্বাচ্ছন্দ্যে ব্যবহার করতে পারবে এই হ্যান্ডসেটসমূহ।

এই গ্যালাক্সি এ সিরিজ গ্যালাক্সি বাডস প্রো, গ্যালাক্সি স্মার্টট্যাগ এবং গ্যালাক্সি ট্যাবের মতো ডিভাইসগুলো সংযোগের সাথে ব্যবহারকারীদের বিস্তৃত গ্যালাক্সি ইকোসিস্টেমে অ্যাক্সেস প্রদান করে, যা তাদের মোবাইল ব্যবহারের অভিজ্ঞতাকে আরও সমৃদ্ধ করবে।

স্যামসাং ইলেকট্রনিক্সের মোবাইল কমিউনিকেশন বিজনেসের সভাপতি ও প্রধান ড. টিএম রোহ বলেন, গ্রাহকদের চাহিদা এবং প্রয়োজনীয়তাকে বিবেচনায় রেখে পণ্য উদ্ভাবনে স্যামসাং সব সময় সচেষ্ট। তাই, গ্যালাক্সির উদ্ভাবন সবার কাছে পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে আমরা গ্যালাক্সি এ সিরিজ নিয়ে এসেছি। গ্যালাক্সি ব্র্যান্ডের ফিলোসফি অনুযায়ী এ৫২ এবং এ৭২-এ রয়েছে সর্বাধুনিক উদ্ভাবন, সেবা ও বৈশিষ্ট্য, যা মিলবে অত্যন্ত সাশ্রয়ী মূল্যে।

স্যামসাং ইতোমধ্যে তাদের ক্যামেরার মান আরও উন্নত করেছে এবং গ্যালাক্সি এ৫২ এবং এ৭২ এর ক্ষেত্রেও এর ব্যাত্যয় ঘটেনি। নতুন গ্যালাক্সি এ সিরিজের আকর্ষণীয় এবং অভিনব প্রযুক্তির ক্যামেরা ব্যবহারকারীদের আরও মজাদার এবং ব্যতিক্রমী ভিডিও ধারণে সক্ষম করবে। ৬৪ মেগা পিক্সেলের হাই-রেজ্যুলেশন কোয়াড ক্যামেরার মাধ্যমে তারা সহজে তুলতে পারবে স্পষ্ট ছবি ও ভিডিও।

এছাড়াও, ব্যবহারকারীরা ৪কে ভিডিও স্ন্যাপের মাধ্যমে ৪কে ভিডিও থেকে তাদের প্রিয় মুহূর্তগুলো ৮ মেগা পিক্সেলের হাই-রেজ্যুলেশন ছবিতে পরিণত করতে পারবে মুহূর্তের মধ্যে। এর স্ক্রিন অপ্টিমাইজার ৩০ ক্যাটাগরির ছবি ও ব্যাকগ্রাউন্ড (যেমন- খাবার, ল্যান্ডস্কেপ এবং পোষা প্রাণী) যথাযথ সেটিংসে ধারণ করতে ব্যবহার করে এআই। ব্যবহারকারীরা চলমান নাচের ট্রেন্ড কিংবা স্কেটবোর্ডের নতুন কৌশল যা-ই ধারণ করুক, ওআইএস (অপটিক্যাল ইমেজ স্টেবিলাইজার) নিশ্চিত করে ছবি ও ভিডিওর তীক্ষ্ণতা এবং স্থিতিশীলতা। মাল্টি-ফ্রেম প্রসেসিং ব্যবহারের কারণে নাইট মোড দিয়ে অন্ধকারেও উজ্জ্বল এবং পরিষ্কার ছবি তোলা যায়। তাই, গুরুত্বপূর্ণ কোন মুহুর্ত হারিয়ে যাওয়ার বিষয়ে আর চিন্তা করতে হবে না।

স্বচ্ছ ডিসপ্লে আর নান্দনিক ডিজাইনের সাথে স্যামসাং তাদের ব্যবহারকারীদের লাইফস্টাইলে যোগ করে নতুন মাত্রা। স্যামসাংয়ের জনপ্রিয় সুপার অ্যামোলেড ডিসপ্লেতে ব্যবহারকারীরা এখন উপভোগ করতে পারবে তাদের প্রিয় অনুষ্ঠান। ৯০ হার্জ রিফ্রেশ রেটের সাথে গ্যালাক্সি এ৫২ এবং এ৭২ স্ক্রলিংয়ের অভিজ্ঞতাকে করে তুলবে আরও আনন্দদায়ক। বাড়তি ৮০০ নিটস লুমিনেন্সের কারণে ঘরের বাইরেও সামাজিক মাধ্যমের পোস্ট দেখা এবং স্ক্রল করা যাবে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি ইকোসিস্টেম-স্মার্টথিংস, স্মার্টথিংস ফাইন্ড, গ্যালাক্সি স্মার্টট্যাগ, মিউজিক শেয়ার, বাডস টুগেদার, কুইক শেয়ার এবং প্রাইভেট শেয়ারের সংযোগ এবং সুবিধা নতুন গ্যালাক্সি এ সিরিজ ব্যবহারের অভিজ্ঞতা আরও বাড়িয়ে তুলবে।

স্যামসাং গ্যালাক্সি এ সিরিজে রয়েছে গ্যালাক্সির সকল উল্লেখযোগ্য ফিচার- আইপি৬৭ রেটিংযুক্ত পানি ও ধুলিকণা রোধক, স্যামসাং নক্স, ওয়ান ইউআই ৩ এবং আরও অনেক কিছু। বিশাল শক্তিসম্পন্ন ব্যাটারির কারণে মানুষ যেকোন সময় ছবি তুলতে এবং মোবাইল ব্যবহার করতে পারে ব্যাটারি শেষ হয়ে যাওয়ার চিন্তা ছাড়া। এ৫২-তে রয়েছে ৪ হাজার ৫০০ মিলি অ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি এবং এ৭২-তে রয়েছে ৫ হাজার মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি, যা দুই দিন পর্যন্ত স্থায়ী হতে পারে। সকল ডিভাইসে রয়েছে ডলবি এটমসের স্টেরিও স্পিকার এবং ১টিবি পর্যন্ত এক্সটারনাল মেমোরি।

নতুন গ্যালাক্সি এ৫২ এবং এ৭২ অওসাম ব্লু, অওসাম ব্ল্যাক এবং অওসাম হোয়াইট রঙে পাওয়া যাবে।

image_printপোস্টটি প্রিন্ট করতে ক্লিক করুন...