১৮ ক্রিকেটারের করোনাভাইরাস পরীক্ষা সম্পন্ন
ছবি: সংগৃহীত

টেকভয়েস২৪ ডেস্ক :: শ্রীলংকা সফর এখনো অনিশ্চিত হলেও নিজেদের পক্ষ থেকে  সব প্রস্তুতি সেরে রাখছে বাংলাদেশ।

শ্রীলংকা সফরের জন্য জিও (সরকারী আদেশ) প্রাপ্ত ২৭ জন ক্রিকেটারের কোভিড-১৯ পরীক্ষা করবে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

শুক্রবার (১৮ সেপ্টেম্বর) থেকে শুরু হয়েছে পরীক্ষা। প্রথম দিন ১৮জন ক্রিকেটারের করোনাভাইরাস পরীক্ষা করা হয়েছে।

শ্রীলংকার সফর এখনো অনিশ্চিত হলেও অনিশ্চিয়তার মধ্যেও নিজেদের পক্ষ থেকে প্রস্তুতি সেরে রাখছে বাংলাদেশ।

বৃহস্পতিবার বিসিবি ক্রিকেট অপারেশন্স চেয়ারম্যান আকরাম খান বলেছিলেন, আমরা আমাদের প্রস্তুতি নিতে চাই।

দ্বিতীয় ধাপের করোনাভাইরাস পরীক্ষা প্রসঙ্গে বিসিবি’র প্রধান চিকিৎসক দেবাশিষ চৌধুরি বলেন, শুক্রবার প্রথম দিন বাংলাদেশ জাতীয় দলের ১৮ জন খেলোয়াড় ও ৩৫ জন হোটেল কর্মচারীর করোনাভারাস পরীক্ষা হয়েছে। বাড়ি গিয়ে ক্রিকেটারদের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

সফরের আগের সূচি অনুসারে জাতীয় দলের ২০ সেপ্টেম্বর হোটেলে ওঠার কথা। তাই হোটেলের কর্মচারীদেরও করোনাভাইরাস পরীক্ষা করা হয়েছে। ২১ সেপ্টেম্বর থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে অনুশীলন শুরু করবে টাইগাররা।

শ্রীলংকা সিরিজকে সামনে রেখে পরিকল্পনার অংশ হিসেবে করোনাভাইরাস পরীক্ষার জন্য ক্রিকেটারদের ব্যক্তিগত অনুশীলন সাময়িকভাবে স্থগিত করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার থেকে শনিবার পর্যন্ত হোম অব ক্রিকেট মিরপুরে অনুশীলনে দেখা যাবে না ক্রিকেটারদের।

ইতোমধ্যে শ্রীলংকার সফরের জন্য নিজেদের অবস্থান পরিষ্কার করেছে বিসিবি। লংকা সফরে সাতদিনের কোয়ারেন্টাইন করতে চায় তারা। আর কোয়ারেন্টাইন চলাকালীন অনুশীলনও করতে আগ্রহী জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা।

এমন শর্তে শ্রীলংকা রাজি না হলে, লংকা সফর করবেন না বলে জানিয়ে দিয়েছে বিসিবি। শ্রীলংকা সফরে তিন ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলবে বাংলাদেশ। যা আইসিসি টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অর্ন্তভুক্ত।

আর শ্রীলংকার শর্ত হলো, সফরে এলে বাংলাদেশের খেলোয়াড়-অফিসিয়ালদের হোটেলে ১৪ দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে এবং এসময় হোটেলের রুম থেকে বের হতে পারবেন না তারা।

২৭ সেপ্টেম্বর শ্রীলংকার সফরের জন্য দেশ ছাড়ার আগে ২৪ সেপ্টেম্বর আবারো করোনাভাইরাস পরীক্ষা করা হবে খেলোয়াড়দের।

এর আগে, আগামী ২৪ অক্টোবর থেকে প্রথম টেস্ট শুরুর সূচি নির্ধারিত ছিলো। সূত্র : বাসস

image_printপোস্টটি প্রিন্ট করতে ক্লিক করুন...