হুয়াওয়ের বিশাল স্টোরেজ ও প্রিমিয়াম ডিজাইনের ফোন

টেকভয়েস২৪ রিপোর্ট :: গ্রাহকের আগ্রহ থাকলেও অনেক সময় ফ্ল্যাগশিপ ফিচারের ফোনের জন্য গুণতে হয় চড়া দাম। তবে দাম বিবেচনায় যারা মাঝারি বাজেটেও ফ্ল্যাগশিপ ফোনের অভিজ্ঞতা নিতে চান, তাদের জন্য সুখবর নিয়ে এসেছে হুয়াওয়ে।

মাঝারি বাজেটে ফ্ল্যাগশিপ ঘরানার প্রিমিয়াম ডিজাইন, বিশাল স্টোরেজ সুবিধাসহ ফটোগ্রাফিক ফিচারের ফোন পি৩০ লাইট।

এক নজরে ফ্ল্যাগশিপ পি৩০ লাইটের জাদুকরি সব ফিচার সম্পর্কে জেনে নেওয়া যাক-

ফটোগ্রাফির জন্য হতে পারে প্রথম পছন্দ
এখন ফটোগ্রাফির জন্য ঢাউস সাইজের ডিসএলআর ক্যামেরার প্রয়োজন পড়ে না। স্মার্টফোন দিয়েই ফটোগ্রাফিতে তাক লাগানো যায়। এজন্য অবশ্য স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠানগুলো অনবরত ক্যামেরা ও লেন্স নিয়ে গবেষণা করে চলছে। যারা ফটোগ্রাফি ভালোবাসেন, এবং স্মার্টফোন দিয়ে দারুণ সব ছবিও তোলেন তাদের জন্য মাঝারি বাজেটে এবারের ঈদে প্রথম পছন্দ হতে পারে হুয়াওয়ের ফ্ল্যাগশিপ পি৩০ লাইট।

ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে ওয়াইড অ্যাঙ্গেলের ট্রাইলেন্স ক্যামেরা। ডিজিটাল জুমিং সুবিধাসহ ফোনটিতে থাকছে ১.৮ অ্যাপারচারের ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্সের ২৪ মেগাপিক্সেলের প্রধান রিয়ার ক্যামেরা। এছাড়াও আল্ট্রা ওয়াইড অ্যাঙ্গেলের ৮ মেগাপিক্সেল ও বোকেহ সুবিধাসহ ২ মেগাপিক্সেলের রিয়ার ক্যামেরা।

এখন উৎসব মানেই সেলফি। আপনার সেলফিগুলোকে আরও রঙিন করতে পি৩০ লাইট স্মার্টফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে ২.০ অ্যাপারচারের ৩২ মেগাপিক্সেলের এআই ফ্রন্ট ক্যামেরা। সেলফিগুলোকে আরও বৈচিত্র্যময় করতে ফোনটিতে যোগ করা হয়েছে পোট্রেইট, প্যানারোমা, থ্রিডি প্যানারোমা, ফিল্টারিং, ক্যাপচার স্মাইলস, মিরর রিফলেকশন, টাইমার, এআর লেন্স, স্টিকারস প্রভৃতি।

ফোনটিতে অনবরত ভিডিও ক্যাপচারিং করা যাবে। সাথে রয়েছে ১০৮০ পিক্সেলের ভিডিও রের্কডিংয়ের সুবিধা। পাওয়া যাবে ১৯২০ ও ১০৮০ পিক্সেলের ভিডিও রেজ্যুলেশন।

ফোনটিতে আল্ট্রা-ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স থাকায় ১২০ ডিগ্রির বিস্তৃত ভিউও পাওয়া যাবে। এছাড়াও সেলফি ক্যামেরায় আট ধরণের এবং ব্যাক ক্যামেরায় ২২ ধরণের দৃশ্য স্বয়ংক্রিয়ভাবে শনাক্ত করতে পারবে এআই ক্যামেরা অ্যাসিসটেন্ট।

রয়েছে বিশাল স্টোরেজ
ছবি, ভিডিও, গান কিংবা অ্যাপস সংরক্ষণের ঝামেলা এড়াতে ফোনটিতে রয়েছে অনেক বড় স্টোরেজ সুবিধা। ৬ জিবি র‌্যামসহ ফোনটিতে ইন্টারনাল স্টোরেজের জন্য রয়েছে ১২৮ জিবি রম। ফলে স্টোরেজের চিন্তা ছাড়াই নির্ঝঞ্ঝাটভাবে ফোনটি ব্যবহার করা যাবে। এছাড়াও ফোনটিতে ৫১২ জিবি পর্যন্ত এক্সটারনাল মেমোরি ব্যবহার করা যাবে।

নজরকাড়া ডিজাইনে ছড়াবে মুগ্ধতা
যারা ফ্যাশনসচেতন তাদের জন্য পি৩০ লাইট হতে পারে প্রথম পছন্দ। স্টাইলিশ ডিজাইনের ফোনটি এমনভাবে তৈরি করা হয়েছে যাতে খুব সহজেই হাতে ধরা যায়। স্লিম ও মসৃণ এ স্মার্টফোনটি থ্রিডি কার্ভড গ্লাস ডিজাইনের। তিনটি কালারে দৃষ্টি আকর্ষক গ্রাডিয়েন্ট ফিনিশের ফোনটি পাওয়া যাচ্ছে। মিডনাইট ব্ল্যাক, পার্ল হোয়াইট ও পিকক ব্লু এ তিনটি কালারে ৬.১৫ ইি র ফুল এইচডি ডিসপ্লের পি৩০ লাইট স্মার্টফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে ডিউড্রপ ডিসপ্লে।

গেম খেলা যাবে ঝামেলাবিহীন
এখন অনেক বড় বা ভালো গ্রাফিক্সের ভিডিও গেমস স্মার্টফোনেই খেলা যায়। এজন্য প্রয়োজন পড়ে ভালো মানের কনফিগারেশন। অন্যথায় গেমিং এক্সপেরিয়েন্স হয় খুবই খারাপ। পি৩০ লাইট স্মার্টফোনটির এ কনফিগারেশন দিয়ে বড় ও গ্রাফিকস গেমগুলো অনায়াসেই খেলা যাবে। এছাড়াও এ অভিজ্ঞতা আরও ভালো করার জন্য ফোনটিতে গ্রাফিকসের যুগান্তকারী প্রযুক্তি জিপিইউ টারবো ২.০ ব্যবহার করা হয়েছে। ফলে আরও দ্রুত ও মসৃণভাবে ফোনটি দিয়ে গেম খেলা যাবে।

ব্যাটারি
অনেক সময় ধরে ব্যাক-আপের জন্য ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে ৩৩৪০ এমএএইচের শক্তিশালী ব্যাটারি। সাথে রয়েছে কুইক চার্জিং প্রযুক্তি যার ফলে ফোনটিতে অল্প সময়ে দ্রুত চার্জ করা যাবে।

দাম
জাদুকরি সব ফিচারের পি৩০ লাইট স্মার্টফোনটির অভিজ্ঞতা পেতে বাংলাদেশি গ্রাহকদের ফোনটি কিনতে হবে মাত্র ২৪ হাজার ৯৯০ টাকা।

টেকভয়েস২৪/পিবি

image_printপোস্টটি প্রিন্ট করতে ক্লিক করুন...