ইউরো ২০২০ চ্যাম্পিয়নশীপের সঙ্গী ভিভো

টেকভয়েস২৪ ডেস্ক :: ফিফা বিশ্বকাপের পর ফুটবলের সবচেয়ে বড় আসর ইউরোপীয়ান চ্যাম্পিয়নশীপ ইউরো। প্রতি চার বছর পরপর অনুষ্ঠিত হয় ইউরোপ সেরার এই ফুটবল লড়াই। সেই হিসেবে ২০১৬’র পর গত বছর অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা ছিল ইউরো-২০২০ চ্যাম্পিয়নশীপের।

তবে এতে বাধ সাধে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া অতিমারি করোনাভাইরাস। আশাহত হন বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে থাকা রোনালদো, এমবাপ্পে ও পল-পগবাদের মতো তারকাদের কোটি কোটি ভক্ত।

কিন্তু ইউরোপের বিভিন্ন দেশে করোনার প্রভাব কিছুটা কমার পর অবশেষে গত ১১ জুন রোমের অলিম্পিক স্টেডিয়ামে জমকালো আয়োজনের মাধ্যমে পর্দা উঠে স্থগিত হওয়া ইউরোপ সেরার এই টুর্নামেন্ট। শুরু থেকেই যার টাইটেল স্পন্সর হিসেবে সাথে আছে বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় স্মার্টফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ভিভো।

শুধু টাইটেল স্পন্সর থেকেই ক্ষান্ত হয়নি ভিভো, ইউরোপের বিভিন্ন দেশের ১১টি ভেন্যুতে অনুষ্ঠিত এই টুর্নামেন্টকে ঘিরে দর্শকদের প্রাণবন্ত অংশগ্রহণ নিশ্চিত করতে ভিভো চালু করেছে বেশ কিছু ক্যাম্পেইনও। এতে দর্শকদের সরাসরি অংশগ্রহণে ২৪টি দেশের এবারের ইউরো ফুটবল হয়ে উঠেছে আরও বর্ণিল।

জানা যায়, আগামী ১১ জুলাই হাঙ্গেরির বুদাপেস্টে পর্দা নামবে মাসব্যাপী চলা এই টুর্নামেন্টের। সেই সমাপনী অনুষ্ঠানও উপস্থাপিত হবে গ্লোবাল স্মার্টফোন ব্র্যান্ড ভিভোর সৌজন্যে।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি পারফরম্যান্স প্রদর্শন করেন বিখ্যাত সংগীত শিল্পী মার্টিন গ্যারিক্স, বোনো এবং দি এজ।

ইউরোর উদ্বোধনী অনুষ্ঠান নিয়ে ভিভোর সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট এবং সিএমও স্পার্ক নি বলেন, বিশ্বব্যাপী ফুটবল ভক্তদের সাথে আমরাও অধীর আগ্রহে অপেক্ষায় ছিলাম কবে পর্দা উঠবে এই টুর্নামেন্টের। উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে উয়েফার সাথে অংশীদার হওয়ার পাশাপাশি টুর্নামেন্টের সাথে সারাবিশ্বের ফুটবলপ্রেমীদের যুক্ত করতে পেরে ভিভো গর্বিত।

image_printপোস্টটি প্রিন্ট করতে ক্লিক করুন...