ভিভোর ৩ বাজেট স্মার্টফোনে থাকছে যেসব চমক

টেকভয়েস২৪ রিপোর্ট:: বৈশ্বিক প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান ভিভো গ্রাহকদের পছন্দ ও সামর্থ্যরে মধ্যে সমন্বয় রাখতে নানা মূল্য পরিসীমার স্মার্টফোন বাজারে আনছে; যাতে গ্রাহকেরা তাদের সাধ্যের মধ্যে সেরাটি বেছে নিতে পারেন সহজেই।

ভিভো’র স্বল্পমূল্যের বাজেট স্মার্টফোনগুলোও তুলনামূলকভাবে আধুনিক ফিচারযুক্ত এবং এগুলোতে সর্বশেষ প্রযুক্তির উন্নত সফটওয়্যার-হার্ডওয়্যার সংযুক্ত করা হয়েছে।

গত বছরজুড়ে ভিভো যে কয়টি স্মার্টফোন বাংলাদেশের বাজারে এনেছে, সেগুলোর বাজেট ১৫ হাজার টাকা থেকে ২৩ হাজারের মধ্যে। এর মাঝে সেরা তিনটি বাজেট স্মার্টফোন হলো ভিভো ওয়াই২১, ওয়াই২০জি এবং ওয়াই৫৩এস। সামর্থ্যরে বাইরে বাড়তি খরচের ঝামেলা ছাড়াই স্মার্টফোনগুলোতে সর্বশেষ প্রযুক্তি উপভোগ বা ব্যবহার করতে পারবেন গ্রাহকেরা।

ভিভো ওয়াই২১
ভিভো ওয়াই২১ মিডিয়াটেক হেলিও পি-৩৫ প্রসেসর সমৃদ্ধ। ১ জিবি এক্সটেন্ডেড র‌্যাম প্রযুক্তির এই স্মার্টফোনের মূল র‌্যাম ৪ জিবি। রয়েছে ৬৪ জিবি’র রম, যা আলাদা মেমোরি কার্ড ব্যবহারের মাধ্যমে ১ টেরাবাইট পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।

স্মার্টফোনটির ডিসপ্লে ৬ দশমিক ৫১ ইঞ্চির। রয়েছে ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার ব্যাটারি এবং ১৮ ওয়াটের ফাস্ট চার্জিং প্রযুক্তি।

ভিভো ওয়াই২১ এর পেছনে ১৩ মেগাপিক্সেলের মেইন ক্যামেরা এবং ২ মেগাপিক্সেলের ম্যাক্রো ক্যামেরা রয়েছে, আর সামনে আছে ৮ মেগাপিক্সেলের সেলফি ক্যামেরা। স্মার্টফোনটি সুপার স্লিম এবং সাইড মাউন্টেড ফিঙ্গারপ্রিন্ট স্ক্যানার সম্বলিত।

মেটালিক ব্লু এবং ডায়মন্ড গ্লো এই দুইটি চমৎকার রঙে পাওয়া যাচ্ছে ভিভো ওয়াই২১; দাম ১৫ হাজার ৯৯০ টাকা।

ভিভো ওয়াই২০জি
গেমারদের জন্য সাধ্যের মধ্যে স্মার্টফোন ভিভো ওয়াই২০জি। এতে থাকা দুর্দান্ত গেমিং প্রসেসর ব্যবহারকারীদেও দেবে স্মার্টফোনেই গেইম খেলার দারুণ গেমিং অভিজ্ঞতা।

ভিভো ওয়াই২০জি’র ব্যাটারিটি ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ার সক্ষমতার। এই স্মার্টফোনে রয়েছে রিভার্স চার্জিংয়ের সুবিধাও। একবার পুরো চার্জ দেওয়ার পর টানা ৮ ঘণ্টা গেমিং করা যাবে, আবার পুরো চার্জ দিয়ে ২০ ঘণ্টা পর্যন্ত অনলাইন এইচডি মুভি দেখা যাবে।

হেলিও জি-৮০ অক্টাকোর প্রসেসরে তৈরি ভিভো ওয়াই২০জি-এর সর্বোচ্চ ক্লক স্পিড দুই গিগাহার্টজ। অর্থাৎ গেমিংয়ের কথা মাথায় রেখেই তৈরি হয়েছে ওয়াই সিরিজের এই দুর্দান্ত মডেলটি। এতে হাইপার ইঞ্জিন গেম প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছে। ফলে একটানা গেম খেললেও স্মার্টফোনটি গরম হয় না।

স্মার্টফোনটি ৬ জিবি র‌্যাম ও ১২৮ জিবি মেমোরির। তবে স্মার্টফোনটিতে অতিরিক্ত মেমোরি কার্ড ব্যবহারের আলাদা ব্যবস্থাও রয়েছে; যেখানে ১ টেরাবাইট সক্ষমতার মেমোরি কার্ড ব্যবহার করা যাবে।

ভিভো ওয়াই২০জি মডেলে রয়েছে ৩টি ক্যামেরা। প্রধান ক্যামেরাটি ১৩ মেগাপিক্সেলের। এছাড়া সুপার ম্যাক্রো ক্যামেরাটি ৪ সেন্টিমিটার কাছ থেকেই ফোকাস করতে পারে। আর ফ্রন্ট ক্যামেরা ৮ মেগাপিক্সেলের। ক্যামেরার সঙ্গে ফেইস বিউটি, পোর্ট্রইেট মোড, ইফেক্ট এবং ফিল্টার প্রযুক্তি সন্নিবেশিত রয়েছে, যা ছবিকে আরও আকর্ষণীয় ও প্রাণবন্ত করে তুলবে। স্মার্টফোনটির দাম ১৭ হাজার ৯৯০ টাকা।

ভিভো ওয়াই৫৩এস
ভিভো ওয়াই৫৩এস স্মার্টফোনটিতে পাওয়া যাবে ফটোগ্রাফির দারুণ অভিজ্ঞতা। ভিভো’র ওয়াই সিরিজের স্মার্টফোনের মধ্যে ওয়াই৫৩এস- এ প্রথমবারের মতো ফেইস ডিটেকশন এবং আই অটোফোকাস প্রযুক্তি সংযুক্ত করা হয়েছে।

স্মার্টফোনটিতে রয়েছে ৫০০০ মিলিঅ্যাম্পিয়ারের ব্যাটারি। দীর্ঘ সময় ধরে ছবি, ভিডিও গেম, মুভি দেখাসহ বিভিন্ন অ্যাপ ব্যবহার করা যায়। আর স্মার্টফোনটির ৩৩ ওয়াট ফ্ল্যাশচার্জ ব্যাটারির দ্রুত চার্জিং নিশ্চিত করে।

স্মার্টফোনটির পেছনে রয়েছে তিনটি ক্যামেরার সেটআপ; যাতে রয়েছে ৬৪ মেগাপিক্সেলের প্রধান ক্যামেরা, ২ মেগাপিক্সেলের বোকেহ পোর্ট্রইেট ক্যামেরা এবং ২ মেগাপিক্সেলের সুপার ম্যাক্রো ক্যামেরা। আরও রয়েছে সুপার নাইট মোড ও ইলেকট্রনিক ইমেজ স্ট্যাবিলাইজেশন (ইআইএস) প্রযুক্তি।

ভিভো’র অত্যাধুনিক লিকুইড ক্রিস্টাল কালার কোটিং প্রসেস প্রযুক্তির ওয়াই৫৩এস স্মার্টফোনটির ডিজাইন অসাধারণ। সুপার নাইট মোড স্বল্প আলোর পরিবেশে নিজ থেকেই স্মার্টফোন স্ক্রিনের উজ্জ্বলতা বাড়িয়ে দেয়। আর সুপার নাইট সেলফি প্রযুক্তি থাকায় রাতের স্বল্প আলোতেও দারুণ সেলফি তোলা যায়।

এর ৮ জিবি র‌্যামকে এক্সটেন্ডেড করা যাবে ১২ জিবি পর্যন্ত; আর ১২৮ জিবি’র মেমোরিকে বাড়ানো যাবে ১ টেরাবাইট পর্যন্ত।

ভিভো ওয়াই৫৩এস স্মার্টফোনটির দাম পড়বে ২২ হাজার ৯৯০ টাকা।

এসব স্মার্টফোন ভিভো’র যেকোনো অথোরাইজড আউটলেট থেকে কেনা যাবে। এছাড়াও গ্রাহকেরা অনলাইনে গ্যাজেট অ্যান্ড গিয়ার, পিকাবো এবং অথবা ডটকম ই-কমার্স প্লাটফর্ম থেকে কিনতে পারবেন।

image_printপোস্টটি প্রিন্ট করতে ক্লিক করুন...