অনলাইন বিজনেসের শুরুতে নতুনদের জন্য কিছু টিপস
অবনি ইসলাম (ছবি: সংগৃহীত)

টেকভয়েস২৪ ডেস্ক :: অনেকদিন থেকেই ভাবছি এ বিষয়টা নিয়ে কিছু লিখব। ইদানীং আমরা সবাই দেখছি অনলাইনে অনেকেই বিজনেস শুরু করেছেন/করতে চাচ্ছেন। আমি ডেইলি বলতে গেলে ৪/৫ টা গ্রুপ + পেইজের ইনভাইটেশন পাই।

তো আমি পারসনালি ব্যাপারটাকে অনেক এপ্রিশিয়েট করছি যে অনেকেই বসে না থেকে এখন কিছু করতে চেষ্টা করছেন ও নিজে সাবলম্বী হবার ট্রাই করছেন।

এ বিষয়ে নতুনদের জন্য আমার কিছু টিপস-

# আপনি কোন বিষয়ে দক্ষ ও কোন বিষয়টা নিয়ে আপনার কাজ করতে ভালো লাগে এ দুটোই ইম্পর্ট্যান্ট। শুধুমাত্র একটা বিষয় ভাল লাগলেই ওটা নিয়ে শুরু করা যায় না। পাশাপাশি ওই ব্যাপারে নলেজ থাকতে হয়। তো ভাল লাগার বিষয়টা সম্পর্কে কিভাবে আগানো যায় পড়ালিখা করুন। তারপর শুরু করুন।

# কোন কিছু শুরু করতে গেলে অনেক কিছু খেয়াল রাখতে হয়। নিজের জন্য একটা জামা ডিজাইন করে বানানো আর অনবরত প্রতি মাসে নতুন ডিজাইনের জামা বানিয়ে আপলোড করা। ওটাকে বাস্তবায়ন করা দুটি দু জিনিস। আপনি ভালো ডিজাইন করতে পারেন এটা অবশ্যই সবচেয়ে প্লাস পয়েন্ট। কিন্তু এর সাথে একটা বিসনেস রান করতে গেলে অনেক মানুষের সাথে ডিল করতে হবে এবং সময় দিতে হবে। টোটাল কাজের একটা স্ট্রং স্ট্রাকচার দাঁড় কিভাবে করবেন সব জেনে তারপর শুরু করুন।

# আপনার ক্যাপাবিলিটি কতটুকু সেটা বুঝে শুরু করুন এবং অর্ডার নিন। ধরুন আপনি হোম মেইড ফুড এর বিসনেস স্টার্ট করলেন। আপনার ১ম দিন একটা খাবার ভালো লাগল ক্রেতার। তো ২য় দিনে আরও ১০/১২ রকমের খাবারের অর্ডার আসলো। তো খুশিতে নিয়ে নিলেন সব অর্ডার। এখন আপনার নাই কোন কর্মী/হেল্পিং হ্যান্ড, একা সব শেষ করতে পারলেন না। তখন আপনার সব রেপুটেশনই শেষ যে, প্রপারলি ডেলিভারি করতে পারলেন না। বিসনেস শুরু করার আগেই একটা খারাপ রিভিউ চলে আসলো।

# যারা বাইরে থেকে কিনে এনে সেল করেন আপনারা ট্রাই করবেন ভালো মানের প্রডাক্ট দিতে। প্রোডাক্ট কিভাবে কাস্টমারের কাছে সুন্দরভাবে উপস্থাপন করা যায়। কারণ যারা কিনে এনে সেল করেন একই প্রোডাক্ট আমি অনেক পেইজেই দেখি। তো সেইম জিনিস যদি সব জায়গায় পাওয়া যায় আমি কেন আপনার পেইজ থেকে নেব?

তো এটার উত্তর হলো –
১.যদি দামে কিছুটা কমে পাই।
২.জিনিস যদি ভালো পাই।
৩.টাইমলি ডেলিভারি পাই
৪.প্রোডাক্ট উপস্থাপন যদি সুন্দর হয়। (ছবি তোলার)
৫.বিসনেস ওউনারের বিহেভ যদি ভালো হয়।

আমি কোন পেজে অর্ডার করতে গেলে রুড বিহেভ পাই আমি কিন্তু আর যাই না। কারণ এসব জিনিস খুঁজলেই অন্য কোন পেজে আমি যাব। যেহেতু এটা সেলারের নিজের প্রোডাকশন/ডিজাইনের কোন জিনিস না।

# যারা নিজের প্রডাক্ট নিজে বানান এবং আরো মানুষের কর্মসংস্থান করেন আইমিন উদ্যোক্তা তারা ট্রাই করবেন নিজের কিছু ইউনিক আনতে যেটা আপনাকে এখন মার্কেটে এগিয়ে নিবে।

# মার্কেট অনেক কম্পিটিটিভ। কোন কিছু নিয়ে নামলে ওটার আগাগোড়া জেনে নামুন। অন্য পেজগুলোতে কেমন দাম, কিভাবে মার্কেটিং করবেন,কোথায় কম দামে পাবেন এগুলো। কখনো অন্য বিসনেস ওনারকে সোর্স জিজ্ঞেস করবেন না, এটা সাধারণ ভদ্রতা। খুঁজলে সব পাওয়া যায়। আগে আর পরে।

# সবাই শুধু যেসব পেজ উঠে গেছে তাদের দেখে, চালাতে না পেরে/লস গুনে যে অনেক পেজ অফ সেটা দেখে না।

যাস্ট মনে হল একটা পেজ খুলে ফেললাম। কিন্তু সার্ভিস দিতে পারলেন না। নলেজ নাই প্রোডাক্ট সম্পর্কে এটা করবেন না। বলবেন যে আপনিও বিসনেস করতেছেন, যে ভালোভাবে চালাচ্ছে সেও করতেছে। দুজনই অনলাইন বিসনেস করেন। কিন্তু তার ডেডিকেশন আপনার থেকে অনেক বেশি।

সুতরাং অনলাইন বিসনেস পেশাটাকে চিপ বানায় ফেইলেন না। অনেক উদ্যোক্তা এবংবিসনেস ওনার অনেক ভালো করতেছেন তাদের দেখে শিখুন।

ছোট একজন উদ্যোক্তা হিসেবে অনেক কিছু বলে ফেললাম। ভুল ত্রুটি হলে মাফ করবেন। হ্যাপি অনলাইন শপিং।

(অবনি ইসলাম-এর ফেসবুক পেজ থেকে. . .)

লেখক : অবনি ইসলাম, নারী উদ্যোক্তা, ফাউন্ডার ও স্বত্বাধিকারী, অনলাইন প্লাটফর্ম ‘AttiRe idyLL’।

image_printপোস্টটি প্রিন্ট করতে ক্লিক করুন...