অনলাইন স্বাস্থ্যসেবায় নতুন দিগন্তের নাম মায়া
ছবি: সংগৃহীত

টেকভয়েস২৪ ডেস্ক :: বাংলাদেশের স্বাস্থ্যসেবায় এক যুগান্তকারী পরিবর্তন আনল মায়া নামক একটি মোবাইল অ্যাপ। অ্যাপটির বর্তমান মাসিক ব্যবহারকারীর সংখ্যা এখন ২০ লাখ।

এ অ্যাপ ব্যবহার করে গ্রাহকরা ফ্রিতে ঘরে বসে প্রশ্ন করে খুব সহজেই নিজের পরিচয় গোপন রেখে রেজিস্ট্রার ডাক্তার, রূপচর্চা বিশেষজ্ঞ ও সাইকো সোশ্যাল এক্সপার্টদের পরামর্শ গ্রহণ করতে পারছেন।

এছাড়াও তাদের বিভিন্ন মূল্যের প্রেসক্রিপশন প্যাকেজ কিনে ডাক্তারদের সঙ্গে ফোনে কথা বলা বা ডাক্তারদের বাড়িতে ডাকারও ব্যবস্থা রয়েছে।

রোগীরা তাদের প্যাথলজিক্যাল রিপোর্ট, আঘাত বা ক্ষত স্থানগুলোর ছবি এক্সপার্টদের সঙ্গে মোবাইলেই শেয়ার করতে পারছেন এবং ডিজিটাল প্রেসক্রিপশন নিতে পারছেন।

২০১২ সালে মহিলাদের গোপনীয় স্বাস্থ্যসেবার ব্লগ হিসেবে যাত্রা শুরু করে মায়া। ২০১৫ সালে এ প্লাটফর্মে পরিচয় গোপন রেখে গ্রাহকরা প্রশ্ন করার সুযোগ পান এবং তখন অন ডিমান্ড এক্সপার্টরা ব্লগেই তাদের পরামর্শ দিতেন।

গ্রাহকদের ক্রমাগত চাহিদা বৃদ্ধির কারণে ২০১৮ সালে মায়া এআই পাওয়ার্ড অ্যাপ এবং ২০১৯ সালে ডিজিটাল প্রেসক্রিপশন, কাউন্সিলিং এবং ই-কমার্স সেবা চালু করে।

মায়ার ফাউন্ডার এবং সিইও আইভি হক রাসেল জানান, বাংলাদেশের জনগণ একজন এক্সপার্টের পরামর্শ গ্রহণের জন্য যেসব অসুবিধার সম্মুখীন হয় তা কমিয়ে আনা একান্ত ইচ্ছা রয়েছে। এ সেবাকে আরও বড় পরিসরে সারা বাংলাদেশে ছড়িয়ে দিতে মায়া টিম নিরলসভাবে কাজ করে চলেছে।

মায়ার সেবা নিতে আপনার অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলের গুগল প্লে-স্টোর থেকে মায়া অ্যাপটি ডাউনলোড করে প্রশ্ন করতে হবে। এছাড়াও মায়ার ই-কমার্স ও অনলাইন ফার্মেসি থেকে প্রয়োজনীয় পণ্য ক্রয়ের সুযোগ রয়েছে।

টেকভয়েস২৪/পিবি