ডিজিটাল নিরাপত্তায় সক্ষমতা তৈরির আহ্বান

টেকভয়েস২৪ রিপোর্ট :: ২০০৯ সাল থেকে সরকার ডিজিটাল বাংলাদেশ তৈরির কাজ শুরু করায় দেশে প্রযুক্তির ব্যাপক প্রসার ঘটেছে। তবে ডিজিটাল নিরাপত্তায় এখনো তেমন সক্ষমতা অর্জ ন করেনি।

আজ গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃতিতে দেশে ডিজিটাল নিরাপত্তায় সক্ষমতা তৈরির জন্য সরকারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন বাংলাদেশ মুঠোফোন গ্রাহক অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ।

সংগঠনটির সভাপতি বলেন, দেশে বর্তমানে ইন্টারনেট ব্যবহারকারী সংখ্যা ৯ কোটি ৮১ লক্ষ ৩৬ হাজার। দৈনিক ব্যান্ডউইথ ব্যবহার হচ্ছে ১ হাজার ৪ শত জিবিপিএস (গিগাবিটস্ পার সেকেন্ড)। দৈনিক মোবাইল ব্যাংকিংয়ে লেনদেন ১২ হাজার কোটি টাকা, ই-কমার্সে লেনদেন ৫০০ কোটি টাকা। বর্তমানে দেশে মোট জনগণের ৫৫ শতাংশ ইন্টারনেট ব্যবহার করে। বাকী ৪৫ শতাংশ নাগরিক ইন্টারনেট ব্যবহার করলে প্রযুক্তির ব্যবহার কোথায় গিয়ে দাঁড়াবে তা বলে বোঝানো যাবে না।

মহিউদ্দিন আহমেদ বলেন, ২০২১ সালের মধ্যে সরকার ৫জি চালু করতে চাচ্ছে। যার গতি হবে জিবিপিএস ফলে ইন্টারনেটের নিরাপত্তা নিশ্চিত না করলে দেশ দ্রুত ধ্বংসের দিকে যাবে এ কথা নিশ্চিত করে বলা যায়। ই-কমার্সে দেশে সবচেয়ে বড় প্রতিষ্ঠান দরাজের বিরুদ্ধে ভোক্তা অধিদপ্তরে অভিযোগের সংখ্যা ২১২ টি। মোবাইল ব্যাংকিয়ে হ্যাকাররা প্রতিদিনই নতুন নতুন প্রযুক্তি ব্যবহার করে হাতিয়ে নিচ্ছে কোটি কোটি টাকা। অনলাইনে ক্যাসিনো, বাজী, ব্যাটিংসহ অসংখ্য জুয়ার সাইট পরিচালিত হচ্ছে বিদেশ থেকে। দেশীয় অপরাধীরা দ্রুত সক্রিয় হচ্ছেন প্রযুক্তি ব্যবহারে।

তিনি বলেন, দেশে প্রযুক্তি নিরাপত্তার কথা বলে ২০১৮ সালে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন সরকার প্রণয়ন করে। কিন্তু এ সকল আইন দিয়ে প্রযুক্তিকে যে নিরাপদ করা যায় না তা ইতোমধ্যে প্রমাণিত। দেশের প্রযুক্তি খাতের জন্য আলাদা মন্ত্রণালয় রয়েছে। কিন্তু এ মন্ত্রণালয়ের প্রযুক্তি নিরাপত্তা বলয় তৈরি করার জন্য কোনো ব্যবস্থা আমরা লক্ষ করি নাই। তাই সরকারের প্রতি আমাদের আহ্বান যত দ্রুত সম্ভব সরকার যাতে প্রযুক্তির নিরাপত্তায় সক্ষমতা তৈরি, জনসচেতনতা, কারিগরি শিক্ষা ও প্রযুক্তির সুষম ব্যবহার নিশ্চিত করার ব্যবস্থা করে।

টেকভয়েস২৪/পিবি