তথ্য প্রযুক্তিতে মেয়েদের উৎসাহিত করার উৎসব

টেকভয়েস২৪ ডেস্ক :: দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আসা নারী শিক্ষার্থীদের উদ্দীপনা এবং স্বতঃস্ফূর্ত অংশগ্রহণের মাধ্যমে শেষ হল তথ্য প্রযুক্তিতে নারীর সাফল্য উদযাপনের এই জমজমাট আয়োজন।

টেকনোলজি নিয়ে কাজ করছেন এমন বাংলাদেশী সফল নারীদের সঙ্গে নতুনদের নেটওয়ার্ক এবং আগামী দিনের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করার প্রস্তুতির লক্ষ্য নিয়ে বৃহস্পতিবার শুরু হওয়া এই উৎসবের ইতি ঘটল শুক্রবার।

কম্পিউটার প্রোগ্রামিং এর প্রবর্তক অ্যাডা লাভলেস এর নামে আয়োজিত এ উৎসবে অংশ নেন দেশের বিভিন্ন প্রান্তের প্রায় তিন শতাধিক শিক্ষার্থী। উৎসবের বিভিন্ন সময়ে এই সকল নতুন সম্ভাবনাময়ী নারী শিক্ষার্থীদের উৎসাহ দিতে উপস্থিত হন তথ্য প্রযুক্তিতে প্রতিষ্ঠিত নারী ব্যক্তিত্বুগণ- ফাহমিদা নিলুফার চৌধুরী,তানজিলা ফারাহ, ড. সেলিয়া শাহনাজ, আছিয়া নিলা,তামান্না মোতাহার প্রমুখ।

মেশিন লার্নিং এন্ড ন্যাচারাল ল্যাঙ্গুয়েজ প্রসেসিং ওয়ার্কশপে অংশ নেন ইউনিভার্সিটি অফ রচেষ্টার এর পিএইচডি শিক্ষার্থী মোহাম্মদ রাফায়েত আলি। দেশের বাইরে থেকে স্কাইপ সেশনে অংশ নেন আওয়ালিন সোপান, ড. জেসমিন জোনস, নাসরিন জাহান, সৈয়দা লাম্মিম আহমেদ।

উৎসবের প্রথম দিন শিক্ষার্থীরা অংশ নেন ন্যাশনাল গার্লস প্রোগ্রামিং কন্টেস্ট, পোস্টার কন্টেস্ট, সেমিনার ও ওয়ার্কশপে। দিনের শেষে সম্মান জানানো হয় দেশের ১০ জন নারী ব্যাক্তিত্বকে যাঁরা আমাদের দেশের তথ্য-প্রযুক্তিতে বিভিন্নভাবে অবদান রেখেছেন।

তাঁদের মাঝে রয়েছেন যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় বিজ্ঞান ফাউন্ডেশনের (National Science Foundation) প্রোগ্রাম ডিরেক্টর ডঃ ফাহমিদা নিলুফার চৌধুরী, শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (সাস্ট) এর পদার্থবিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. ইয়াসমিন হক।

আরো রয়েছেন  জনতা ব্যাংক লিমিটেডের বোর্ডের সাবেক চেয়ারম্যান এবং সফটওয়্যার সংস্থা দোহাটেক নিউ মিডিয়াযর চেয়ারম্যান লুনা শামসুদ্দোহা, বাংলাদেশ ব্যাংকের ইতিহাসে প্রথম মহিলা ডেপুটি গভর্নর নাজনীন সুলতানা, দেশের প্রথম নারী প্রোগ্রামার শাহেদা মুস্তাফিজ, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং ও বায়োটেকনোলজি বিভাগের অধ্যাপক ড. জেসমিন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড. সুরাইয়া পারভিন, উইন ইনকর্পোরেট এবং উইনমিয়াকি লিমিটেডের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এবং চেয়ারম্যান ড. কাশফিয়া আহমেদ, বাংলাদেশ প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় (বুয়েট) -এ কম্পিউটার বিজ্ঞান ও প্রকৌশল বিভাগের অধ্যাপক ড. মাহমুদা নাজনীন, বাংলাদেশী আমেরিকান বিজ্ঞানী এবং নাসার গড্ডার্ড স্পেস ফ্লাইট সেন্টারে শীর্ষস্থানীয় দলের সদস্য মাহমুদা সুলতানা, কর্নেল বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনফরমেশন সাইন্স বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক তানজিম চৌধুরী, যুক্তরাজ্যের ব্রিটিশ সিকিউরিটি সফ্টওয়্যার এন্ড হার্ডওয়্যার সংস্থা সফোসের আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স দলের একজন প্রধান বিজ্ঞানী আওয়ালিন সোপান, ইন্টেল কর্পোরেশনের পারফরম্যান্স আর্কিটেক্ট ড. ইফফাত কাজী।

প্রথমদিন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্লাজায় চলতে থাকে BACCO, Wedevs, বাংলাদেশ উইমেন ইন টেকনোলজি (বিডব্লিউআইটি), দোহাটেক, ক্রিয়েটিভ আইটি, ডি.নেট, স্কাইলার্ক সফট লিমিটেড, অন্যরকম গ্রুপ, ওয়ার্কস্টেশন ১০১, ইন্ট্রারেক্টিভ আর্টইফেক্ট, বিটেকনলোজিসহ আরও অনেক স্বনামধন্য চাকরিদাতা প্রতিষ্ঠানগুলোর অংশগ্রহণে জব ফেয়ার। এছাড়াও কাজি আইটি সেন্টার, ব্রেইনস্টেশন ২৩ এবং কল সেন্টার অগমেডিক্স এর উদ্যোগে ছিলো ক্যারিয়ার সেশন।

আয়োজনের শেষে প্রোগ্রামিং কন্টেস্ট এবং পোস্টার কন্টেস্টে বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেয়া হয়। অ্যাডা লাভলেস সেলিব্রেশন-২০২০ ন্যাশনাল প্রোগ্রামিং কন্টেস্টে চ্যাম্পিয়ন হয়েছে সিলেটের মেত্রোপলিটান ইউনিভার্সিটির ‘লাস্ট ট্রাই’ টিম এবং পোস্টার প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন হয় নর্থ সাউথ বিশ্ববিদ্যালয়ের তাপসি রাবেয়া।

এই আয়োজনের সাথে রয়েছে- ভেঞ্চার ক্যাপিটাল ও প্রাইভেট ইকুইটি এসোসিয়েশন অফ বাংলাদেশ (ভিসিপিইএবি), বাংলাদেশ উইমেন ইন টেকনোলজি (বিডব্লিউআইটি), ইন্টারনেট সোসাইটি বাংলাদেশ চ্যাপ্টার, হার স্টোরি, বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি, আম্বার আইটি, ওয়ালেটমিক্স, প্রোগ্রামিং প্ল্যাটফর্ম টফ ছাড়াও আরও অনেক প্রতিষ্ঠান।

টেকভয়েস২৪/পিবি

image_printপোস্টটি প্রিন্ট করতে ক্লিক করুন...