তিনবার সাপের কামেড়র পর বিপদমুক্ত সালমান খান

টেকভয়েস২৪ ডেস্ক :: শনিবার মধ্য রাতের অঘটনের পর সংবাদমাধ্যমের কাছে মুখ খুললেন বজরঙ্গি ‘ভাইজান’। সালমান খানের শরীরে তিনবার কামড় বসিয়েছে সাপটি।

সালমান খান বলেন, আমাদের পানভেলের খামারবাড়িতে একটি সাপ ঢুকে পড়ে। আমি লাঠি দিয়ে সেই সাপটিকে তুলি। বাইরের জঙ্গলে ফেলে আসার চেষ্টা করি।

কিন্তু ধীরে ধীরে সাপটি আমার হাতে উঠে আসে। আমি হাত দিয়ে সাপটিকে ধরি। তার পর সাপটি তিনবার আমার হাতে কামড় বসায়।

সালমান খান আরো জানান, সেই সাপটিকে দেখেই বিষাক্ত বলে মনে হয়েছে তার। হাসপাতালে ছয় থেকে সাত ঘণ্টা থাকতে হয়েছে তাকে। তবে এখন তিনি ভালো আছেন বলে জানিয়েছেন।

সালমান খানের মতে, সাপটি বিষাক্ত হলেও তার বাবা সেলিম খান এবং ঘনিষ্ঠ বন্ধু সূত্রে জানা গেছে, সাপটির বিষ নেই। তাই কোনো তথ্য সত্যি, তা নিয়ে ধোঁয়াশা রয়েই গেলো।

খামারবাড়িতে সাপের ছোবল খাওয়ার পর সোমবার জন্মদিনের সকালে মুখ খুললেন বলিউড অভিনেতা সালমান খান। আপাতত ঝুঁকিমুক্ত বলিউডের ভাইজান। হাসপাতাল থেকে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।

শনিবার দিবাগত রাতে মুম্বাইয়ের উপকণ্ঠে পানভেলের খামারবাড়িতে সময় কাটাচ্ছিলেন অভিনেতা। সেখানে একটি সাপ তাকে দংশন করে। দ্রুত অভিনেতাকে নিয়ে যাওয়া হয় নভি মুম্বাইয়ের এক হাসপাতালে। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসার পর রবিবার সন্ধ্যায় ছেড়ে দেয়া হয় তাকে।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, আপাতত তিনি স্থিতিশীল। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, সাপটি বিষধর নয়।

হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়ে পরিবার ও কাছের বন্ধু বান্ধবদের সাথে নিজের ৫৬তম জন্মদিন পালন করতে খামারবাড়ি গিয়েছেন সালমান খান। সোমবার সকালে গণমাধ্যমকে দেয়া বার্তায় ভাইজান বলেন, সাপটি খামারবাড়ির একটি ঘরে প্রবেশ করলে বাকিদের রক্ষা করার কথা ভেবে সাপটিকে সরাতে চায় সালমান খান। ওই সময়েই সাপ ছোবল মারে তাকে।

এ ঘটনার পর চিন্তায় পড়ে যায় তার স্বজন, বন্ধু ও ভক্তরা। এরপর বাবা সেলিম খানের সাথে কথা বলে সালমান বলেন, ‘বাঘ ও সাপ দুই ভালো আছে।’ ওই ঘটনার পর সাপটিকে জঙ্গলে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। বলিউডের ব্লকবাস্টার সিনেমা এক থা টাইগার ও টাইগার জিন্দা হ্যায় সিনেমায় অভিনয়ের পর সবার কাছে টাইগার নামেই পরিচিত সালমান খান।

সময় পেলেই পানভেলের ফার্মহাউসে চলে যান সালমান খান। এমনকি, পরপর দুবার করোনার জন্য চলা লকডাউনেও সেখানেই ছিলেন তিনি। শুটিংয়ের ব্যস্ততা না থাকলেও শহুরে কোলাহল থেকে দূরে এই খামারবাড়িতেই সময় কাটাতে ভালোবাসেন ভাইজান। সেখানে পালিত পশুদের সঙ্গে সময় কাটানো, ক্ষেতে চাষ করার মতো কাজ করে থাকেন তিনি। একাধিক ছবিও শেয়ার করেন ফার্ম হাউস থেকে। বড়দিন উপলক্ষেই গিয়েছিলেন এবার।

প্রসঙ্গত, নতুন বছরেই টাইগার-৩-এর শুটে দিল্লি যাওয়ার কথা রয়েছে তার। ক্যাটরিনাকে সঙ্গে নিয়ে সেখানে দিন পনেরো ধরে করবেন শুট। শুধু তাই নয়, শোনা যাচ্ছে এর মাঝে সেখানে হাজির হওয়ার কথা রয়েছে শাহরুখেরও। সালমানের ছবিতে গেস্ট অ্যাপিয়ারেন্স করবেন শাহরুখ খান। এ ছাড়া তার হাতে আছে ‘কাভি ঈদ কাভি দিওয়ালি’, ‘কিক টু’ ছবি দুটি। তাকে দেখা যাবে আমির খান অভিনীত ‘লাল সিং চাড্ডা’ ছবিতেও।

image_printপোস্টটি প্রিন্ট করতে ক্লিক করুন...