পরবর্তী বিশ্বকাপ হবে অস্ট্রেলিয়ার ৭ ভেন্যুতে

টেকভয়েস২৪ ডেস্ক :: প্রায় ৫ বছর পর সফল ভাবে আয়োজিত হলো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের সপ্তম আসর। করোনাভাইরাসের কারণে ভারতে অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া সফরটি এক বছর বিলম্বিত হয়ে মাঠে গড়ায় ওমান ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের বেশ কয়েকটি মাঠে।

মারমার কাটকাট আসরে নতুন চ্যাম্পিয়নও বনে গেছে অস্ট্রেলিয়া। এবার অপেক্ষা আসরটির পরবর্তী লড়াইয়ের।

বর্তমান চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়ার মাঠে ২০২২ সালের ১৬ অক্টোবর থেকে শুরু হবে পরবর্তী বিশ্বকাপ, তা আগে থেকেই ঠিক করা ছিল। এবার বৈশ্বিক আসরটির আয়োজনকারী মাঠগুলির নামও জানিয়ে দিল ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি।

অস্ট্রেলিয়ার সাতটি মাঠে অনুষ্ঠিত হবে আসন্ন আসর। মাঠগুলো হলো, এসসিজি, এমসিজি, অ্যাডিলেড ওভাল, গাব্বা, হোবার্টের বেলরিভ ওভাল, পার্থ স্টেডিয়াম এবং জিওলংয়ের কার্দিনিয়া পার্ক। সদ্য সমাপ্ত আসরের মতো এবারও মোট ৪৫টি ম্যাচ খেলা হবে পুরো আসরে। সেখানে সেমিফাইনাল দুটি অনুষ্ঠিত হবে ৯ ও ১০ নভেম্বর যথাক্রমে যথাক্রমে এসসিজি এবং অ্যাডিলেড ওভালে। আর অষ্টম আসরের শিরোপা নির্ধারনী ম্যাচটি ১৩ নভেম্বর অনুষ্ঠিত হবে বিখ্যাত এমসিজিতে।

করোনাভাইরাসের কারণে পরপর দুটি বিশ্বকাপ অনুষ্ঠিত হতে চলছে। অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপেও একই ফরম্যাটে আসরটি আয়োজন করবে আইসিসি। সেখানে সরাসরি সুপার টুয়েলভে খেলবে আটটি দল। বর্তমান চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া ও রানার্স আপ নিউজিল্যান্ড ছাড়াও এই তালিকায় রয়েছে বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, আফগানিস্তান, ইংল্যান্ড ও দক্ষিণ আফ্রিকা।

দ্বিতীয় রাউন্ডে আট দলের মাঝে কোয়ালিফাই করে আসতে হবে বাকি চার দলকে। সেখানে ওয়েস্ট ইন্ডিজ, শ্রীলঙ্কা, নমিবিয়া ও স্কটল্যান্ড কোয়ালিফাই করার জন্য লড়বে প্রথম রাউন্ডের জন্য কোয়ালিফায়ার খেলে যোগ্যতা লাভ করা বাকি চার দলের সঙ্গে। আগামী জানুয়ারি মাসে টুর্নামেন্টের সম্পূর্ণ সূচি জানানো হবে বলে জানিয়েছে আইসিসি।

image_printপোস্টটি প্রিন্ট করতে ক্লিক করুন...