বড়দিন উপলক্ষে পর্দায় দেখা যাবে যেসব ছবি

টেকভয়েস২৪ ডেস্ক :: দেখতে দেখতে ২০১৯ প্রায় শেষের পথে। শীতের হিম হিম বাতাস জানান দিচ্ছে বড়দিন কড়া নাড়ছে দোরগোড়ায়।

উৎসবের এই দিনকে ঘিরে এ বছর এরই মধ্যে মুক্তি পেয়েছে দারুণ সব চলচ্চিত্র। কোনোটা বড় পর্দার জন্য, কোনোটা আয়েশ করে পপকর্নের বাটি হাতে নিয়ে স্ট্রিমিং সাইটে দেখার মতো কনটেন্ট। তাই এই ছুটিতে আপনি ঘরে বসেই দেখে নিতে পারেন ছবিগুলো।

দ্য নাইট বিফোর ক্রিসমাস
বড়দিনে যেন নতুন মুভির ঝুলি খুলে বসেছে নেটফ্লিক্স! অদ্ভুত রূপকথা আর বর্তমান সময়ের প্রেমের কাহিনি নিয়ে নেটফ্লিক্স তৈরি করেছে চলচ্চিত্র দ্য নাইট বিফোর ক্রিসমাস। ছবিতে জাদুর মাধ্যমে মধ্যযুগ থেকে বর্তমান সময়ে চলে আসা এক যোদ্ধা এবং এ সময়ের এক তরুণীর প্রেমের গল্প দেখা যাবে।

লাস্ট ক্রিসমাস
লন্ডনের একটি দোকানে কর্মরত তরুণীর জীবন নিয়ে চলচ্চিত্র লাস্ট ক্রিসমাস। রোমান্টিক/কমেডি ঘরানার ছবিতে অভিনয় করেছেন এমিলিয়া ক্লার্ক, এমা থম্পসন, হেনরি গোল্ডিংসহ অনেকে।

ক্লজ
সান্তা ক্লজকে নিয়ে মার্কিনমুলুকে সিনেমার অভাব নেই। প্রতিবছর নতুন নতুন গল্পে দেখা যায় সান্তাকে। এবারও এর ব্যতিক্রম হয়নি। সান্তা ক্লজ আজকের ‘সান্তা ক্লজ’ কীভাবে হলেন? আসলেই কী তাঁর হরিণগুলো উড়তে পারে? এই সব প্রশ্নের উত্তর পাবেন নেটফ্লিক্সের অ্যানিমেটেড ছবি ক্লজ-এ।

আ ক্রিসমাস প্রি: দ্য রয়াল বেবি
প্রিন্স হ্যারি ও মেগান মার্কেলের রাজকীয় জীবন এবং সন্তানকে স্বাগত জানানোর রীতিনীতি থেকে প্রভাবিত হয়েই তৈরি করা হয়েছে আ ক্রিসমাস প্রিন্স: দ্য রয়াল বেবি। সন্তানকে জন্ম দিতে খুব একটা কম ঝামেলা পোহাতে হয়নি ছবির এই রাজকীয় দম্পতিকে, যা দেখে বোঝা যাবে রাজপরিবারের সংকট সাধারণ মানুষের চেয়ে কম নয়।

হলিডে রাশ
রেডিওর ডিজে র‌্যাশন রাশ উইলিয়াম স্ত্রীকে হারানোর পর বড়দিনে সন্তানদের সব চাওয়া পূরণ করতে চায়। কিন্তু হুট করেই তার চাকরি চলে যায়। তা-ও বড়দিনের ঠিক আগে। এখন কী করবে রাশ? জানতে হলে দেখুন হলিডে রাশ।

আ সিন্ডারেলা স্টোরি: ক্রিসমাস উইশ
মেয়েটা খুব ভালো গান গায়। কিন্তু মা আর দুই সৎবোনের জন্য মোটেই গান গাওয়া হচ্ছে না তার। এমন অবস্থায় নতুন এক জায়গায় কাজ করতে গিয়ে সুদর্শন সান্তাকে ভালোবেসে ফেলে তরুণী। এবার কী হবে? পুরোটাই দেখা যাবে আ সিন্ডারেলা স্টোরি: ক্রিসমাস উইশ সিনেমায়।

লেট ইট স্নো
৮ নভেম্বর নেটফ্লিক্সে উঠেছে ছবিটি। এর গল্প একটি ছোট শহরকে কেন্দ্র করে। বড়দিনের এক শীতল দিনে শহরে ঝড় এসে আঘাত হানে। আর সেই ঝড় ওলটপালট করে দেয় শহরবাসীর জীবন। জন গ্রিন, লরেন মিরাকেল এবং মরিন জনসনের লেখা বইয়ের ওপর ভিত্তি করে নির্মিত হয়েছে চলচ্চিত্রটি।

নোয়েলে
ক্রিস ক্রিঙ্গেলের ছেলে নিক প্রস্তুতি নিচ্ছে পরবর্তী সান্তা ক্লজ হওয়ার জন্য। কিন্তু কিছুতেই নিজেকে সান্তা ক্লজ হিসেবে তৈরি করতে পারছে না সে। অন্যদিকে তার বোন নোয়েলেও নিকের মতো গুরুত্বপূর্ণ কোনো কাজ করতে চায় বড়দিনে। কিন্তু মেয়ে হওয়ায় তাকে সেই দায়িত্ব দেওয়া হচ্ছে না। শেষমেশ এক অদ্ভুত মোড় আসে গল্পে। হারিয়ে যায় নিক। তাকে খুঁজতে বেরিয়ে পড়ে নোয়েল। অ্যানা কেন্ড্রিক অভিনীত ছবিটি ডিজনি প্লাসে দেখা যাচ্ছে। সূত্র: প্রথম আলো

টেকভয়েস২৪/পিবি

image_printপোস্টটি প্রিন্ট করতে ক্লিক করুন...