মেলায় শিশু-কিশোরদের নতুন চমক ‘বিজ্ঞানবাক্স’

টেকভয়েস২৪ ডেস্ক :: শিক্ষামূলক বিনোদন উপকরণ তৈরির জন্য সুপরিচিত অন্যরকম বিজ্ঞানবাক্স এবার বাণিজ্য মেলায় শিশু-কিশোরদের জন্য অন্যতম আকর্ষণ হিসেবে থাকছে।

অন্যরকম বিজ্ঞানবাক্স বাংলাদেশে তৈরি প্রথম সায়েন্স কিট, যা উৎপাদন এবং বিপণন করে থাকে অন্যরকম ইলেকট্রনিক্স।

বিজ্ঞানবাক্সের ভেতরে নানারকম উপাদান দেয়া থাকে, যা দিয়ে বিজ্ঞানের নানারকম পরীক্ষণ করা যায়। সঙ্গে সহায়ক বই এবং সিডি দেয়ার কারণে শিশু-কিশোরেরা খুব সহজেই অন্যের সাহায্য ছাড়াই এক্সপেরিমেন্টগুলো করতে পারে।

বিজ্ঞানবাক্সের মাধ্যমে পাঠ্যবইয়ে বিজ্ঞানের বিভিন্ন সূত্র হাতে কলমে পরীক্ষা করে দেখার ফলে বিজ্ঞান শিক্ষা তাদের কাছে সহজতর হয়।
বিজ্ঞানবাক্সগুলো মূলত বিষয়ভিত্তিক হয়ে থাকে। যেমন আলো, চুম্বক, তড়িৎ, রসায়ন, শব্দ, মাপজোখ এসব বিষয় নিয়ে ৬টি বিজ্ঞানবাক্স রয়েছে। তবে এবারই প্রথম এসেছে শ্রেণিভিত্তিক বিজ্ঞানবাক্স।

পঞ্চম শ্রেণির সকল এক্সপেরিমেন্ট নিয়ে এসেছে নতুন বিজ্ঞানবাক্স। এই বিজ্ঞানবাক্সটি শ্রেণীকক্ষে শিক্ষকদের পাঠ প্রদানের উপযোগী করে তৈরি করা হয়েছে। ফলে, শিক্ষক এবং শিক্ষার্থী, উভয়েরই উপকারে আসবে এই বিজ্ঞানবাক্সটি।

এছাড়াও নতুন আকর্ষণ হিসেবে আছে মনোযোগ বাড়ানোর খেলা ‘ফোকাস চ্যালেঞ্জ’। শিগগির আসবে জ্যামিতিক আকৃতি দিয়ে নানারকম চিত্র তৈরির খেলা ট্যানগ্রাম এবং স্মার্টকিট ‘ক্যাপ্টেন কিউরিয়াস’।

এবারের মেলা উপলক্ষে বিজ্ঞানবাক্সে রয়েছে আকর্ষণীয় ডিসকাউন্ট এবং সারপ্রাইজ গিফট। বিজ্ঞানবাক্স কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, প্রতিটি বিজ্ঞানবাক্সে ৫০ থেকে ৪০০ টাকা পর্যন্ত ডিসকাউন্ট থাকছে।

এছাড়াও থাকছে বিজ্ঞানবাক্সের পক্ষ থেকে বিশেষ উপহার পাবার সুযোগ, যেমন- খাতা, ব্যাজ, স্টিকার ইত্যাদি।

প্রতি সপ্তাহে তিনজন ক্রেতা #ilovebigganbaksho হ্যাশট্যাগটি ব্যবহার করে পেয়ে যাবেন সেলফি স্টিক, ভিআর বক্স, স্কুলব্যাগসহ দারুণ সব উপহার।

কোন বয়স থেকে বিজ্ঞানবাক্স ব্যবহার করা যাবে? এ প্রশ্নের জবাবে স্টলকর্মী মামুন বলেন, বিভিন্ন বয়সের জন্য বিভিন্ন বক্স উপযোগী হবে। নতুন কিট ফোকাস চ্যালেঞ্জ এবং ট্যানগ্রাম ৩+ বয়স থেকেই ব্যবহার করা যাবে। বাকিগুলো ৬+ বয়সী শিশুদের উপযোগী।

কেন বিজ্ঞানবাক্স কিনছেন? এ প্রশ্নের জবাবে অভিভাবক সাবিহা রহমান জানালেন, সন্তানকে ক্রিয়েটিভ এবং কৌতূহলী করে তোলার জন্য বিজ্ঞানবাক্সের বিকল্প নেই। হাতে কলমে বিজ্ঞান শেখার জন্য এটি বেশ সহায়ক। বিজ্ঞানবাক্সের স্টল নাম্বার পিএমপি-৩৮। প্রথম গেট দিয়ে ঢুকলেই হাতের বামে স্টলটি পাওয়া যাবে।

অফার এবং যাবতীয় আপডেট বিস্তারিত পাওয়া যাবে বিজ্ঞানবাক্সের ওয়েবসাইটে  এই ঠিকানায়।

image_printপোস্টটি প্রিন্ট করতে ক্লিক করুন...