প্রযুক্তি ব্যবহারে আইসিটি বিভাগ ‘সম্মুখ ভাগের সৈনিক’
ছবি: সংগৃহীত

টেকভয়েস২৪ ডেস্ক :: করোনাভাইরাস মোকাবিলায় ফ্রন্টিয়ার প্রযুক্তি ব্যবহারে আইসিটি বিভাগ ‘সম্মুখ ভাগের সৈনিক’ হিসেবে কাজ করে যাচ্ছে বলে মন্তব্য করেছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের জ্যেষ্ঠ সচিব এন এম জিয়াউল আলম।

শনিবার (৬ জুন) অনলাইনে ‘ব্লকচেইন প্রযুক্তি’ বিষয়ক প্রশক্ষণ কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের উদ্ভাবন ও উদ্যোক্তা উন্নয়ন একাডেমী প্রতিষ্ঠাকরণ প্রকল্পের (iDEA) আয়োজনে এই কর্মসূচিতে বরিশাল বিভাগের নির্বাচিত ৬০ জন শিক্ষার্থীকে প্রশিক্ষণ দেয়া হয়।

স্টার্টআপ বাংলাদেশ প্রকল্পের পরিচালক সৈয়দ মজিবুল হকের সভাপতিত্বে এসময় বক্তব্য দেন বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন সদস্য প্রফেসর ড. মো. সাজ্জাদ হোসেন এবং বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (বিসিসি) এর নির্বাহী পরিচালক পার্থপ্রতিম দেব।

প্রশিক্ষকের ভূমিকা পালন করেন জাপানের University Of Hyogo এর গ্র্যাজুয়েট স্কুল অব সিমুলেশন স্টাডিস এর রিসার্স ফেলো রুবাইয়াত ইসলাম, দি কম্পিউটারস্ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও ব্লকচেইন বিশেষজ্ঞ খন্দকার আতিক-ই-রাব্বানী এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইন্সটিটিউট অব ইনফরমেশন টেকনোলজি (আইআইটি) এর সহযোগী অধ্যাপক ড. বি এম মইনুল হোসেন।

জিয়াউল আলম বলেন, ভূমির ই-মিউটেশনের পর এক্ষেত্রে ব্লক-চেইন প্রযুক্তি ব্যবহারের উদ্যোগ নিয়েছে এটুআই। কিছুদিন আগে বিসিসি তাদের প্রশিক্ষণ সনদগুলো ব্লক চেইন এর মাধ্যমে করেছে। সর্বশেষ করোনা ট্রেসার বিডি অ্যাপ্লিকেশন তৈরিতেও ফ্রন্টিয়ার টেকনলোজি ব্যবহার করা হয়েছে। তবে এক্ষেত্রে আমাদের সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন প্রশিক্ষিত জনবল।

ব্লকচেইন প্রযুক্তির মাধ্যমে দেশের সার্বিক ব্যবস্থাপনাকে আরো উন্নত করার পাশাপাশি স্বচ্ছতা নিশ্চিত করা সম্ভব হবে বলে অভিমত প্রকাশ করেন তিনি।

সৈয়দ মজিবুল হক বলেন, ফ্রন্টিয়ার টেকলোজি ছাড়া ভবিষ্যতে আমরা কোনো ধরনের সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে পারবো না। যদি আমরা ডিজিটাল মার্কেটিং বলি অথবা অন্য কোনো কাজ করতে চাই তবে আমাদের অবশ্যই ফ্রন্টিয়ার টেকলোজি ব্যবহার করতে হবে। সে ক্ষেত্রে ব্লকচেইন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবে। এটি না জানলে আমরা ইতোমধ্যেই শুরু হওয়া ৪র্থ শিল্প বিপ্লবে পিছিয়ে পড়বো।

বিসিসি এর বরিশাল বিভাগের আঞ্চলিক পরিচালক মো. মনিরুল ইসলাম, iDEA প্রকল্পের উপ-প্রকল্প পরিচালক (উপসচিব) কাজী হোসনে আরা, প্রকল্পের সিনিয়র পরামর্শক আর এইচ এম আলাওল কবির, প্রকল্পের টেকনোলজি ম্যানেজমেন্ট স্পেশালিস্ট মেহেদী হাসান ভূঁইয়া,

প্রকল্পের পরামর্শক মনিরুল ইসলাম, সোহাগ চন্দ্র দাসসহ বরিশাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় এবং পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকগণ, বিসিসি ও আইসিটি বিভাগের অন্যান্য কর্মকর্তাগণ এসময় অনলাইনে উপস্থিত ছিলেন।

image_printপোস্টটি প্রিন্ট করতে ক্লিক করুন...