সাময়িক মুক্তি পেলো রবি

টেকভয়েস২৪ ডেস্ক :: প্রায় ছয় মাস অনাপত্তি বাধা থেকে সাময়িক মুক্তি পেলো মোবাইল অপারেটর রবি।

আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী মঙ্গলবার  বিটিআরসিতে বকেয়া পাওনার প্রথম কিস্তির ২৭ কোটি ৬০ লাখ জমা দেয়ায় এই বাধা থেকে মুক্তি পেয়েছে অপারেটরটি।

তবে এটি স্থায়ী নয়। অস্থায়ী। দ্বিতীয় কিস্তির টাকা জমা দেয়ার আগ পর্যন্ত বিটিআরসি’র কাছ থেকে এনওসি নিতে পারবে। এর ফলে সরঞ্জামাদি আমদানি, নতুন কলরেট, অফার, ইত্যাদি চালু করার সুবিধা পাবে।

এ বিষয়ে ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেন, রবি প্রথম কিস্তির টাকা জমা দেওয়ার পর থেকেই তারা এনওসি সুবিধা পাওয়ার যোগ্য হয়েছে। আগামী কাল থেকেই তারা এটি পেতে পারবে। তবে এই সুবিধা দ্বিতীয় কিস্তির টাকা জমা দেওয়ার আগ পর্যন্ত চলবে। দ্বিতীয় কিস্তির টাকা দিলে এর পরের সময়ের জন্য এনওসি সুবিধা পাবে। পুরো টাকা দেওয়ার পর এনওসি বাধা পুরোপুর তুলে নেওয়া হবে।

বিটিআরসির সিনিয়র সহকারী পরিচালক জাকির হোসেন জানিয়েছেন, রবির কাছে পাওনা মোট ৮৬৭ কোটি ২৩ লাখ টাকা। এই টাকা থেকে প্রথমে ১৩৮ কোটি টাকা পাঁচ কিস্তিতে পরিশোধ করার জন্য আদালত নির্দেশ দিয়েছিল। সে অনুযায়ী আজ রবি প্রথম কিস্তিতে ২৭ কোটি ৬০ লাখ টাকা দিয়েছে।

এর আগে গত ৫ জানুয়ারি বিটিআরসি-রবির অডিট আপত্তির পাওনা দাবির পরিপ্রেক্ষিতে আপাতত পাঁচ মাসের সমান কিস্তিতে ১৩৮ কোটি টাকা পরিশোধে রবিকে নির্দেশ দিয়েছিল উচ্চ আদালত। যার প্রথম কিস্তি দেয়ার কথা ছিল ৩০ জানুয়ারির মধ্যে।

এদিকে গ্রামীণফোনকে আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারির মধ্যে ২০০০ কোটি টাকা জমা দিতে বলেছেন আদালত। তবে এখনও গ্রামীণফোন বিটিআরসিকে টাকা দেয়নি বলে জানান তিনি। গ্রামীণফোনের কাছে বিটিআরসির পাওনা ১২ হাজার ৫৭৯ কোটি টাকা।

image_printপোস্টটি প্রিন্ট করতে ক্লিক করুন...